আজকে প্রায় ১৯ দিন দেশে থাকার পর আমার বোন আর তার পরিবার জার্মানী ফিরে গেলো। ওদের সবাইকে এয়ারপোর্টে সি-অফ করতে গিয়েছিলাম।

এর আগেও ওদেরকে বেশ কয়েকবার এয়ারপোর্টে বেশ কয়েকবার সী-অফ করতে গিয়াছিলাম, কিন্ত কোনবারই মনে এতটা খারাপ লাগেনি। আসলে এবার এমন কিছু ঘটেছে যার কারনে আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকব সারা জীবন।

ব্যাপারটা আসলে সবার কাছে তেমন কিছুই না, কিন্তু আমার কাছে অনেক কিছু। আমার বোন জামাই, এজাজ ভাই, আমার বড় বোন, আমার ভাগ্নে আরিয়ান আর ভাগ্নী আরমিনা আমার ছেলে আলীফের প্রতি যে ভালোবাসা দেখিয়েছে তার জন্য আমি সত্যি তাদেরকে মনে মনে ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা জানাই।

আলীফের প্রতি তাদের ভালোবাসায় কোন্রকম কৃত্রিমতা ছিলো না। এই কৃত্রিমতা আমি অনেক আপনা মানুষের মধ্যেই দেখেছি যা আমি চাইলেও মন থেকে মুছে ফেলতে পারব না।

যাহোক, ওদের প্রতি হয় শুধুমাত্র এই কারনেই হয়ত সারাজীবন আমি কৃতজ্ঞ থাকব। আমি হয়ত তাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে যাবো।